top of page

মাল্টিকুইজিনের এক নতুন নাম: ফিল দ্যা ব্রীজ


নতুন নতুন খাবার এর স্বাদ গ্রহন করা বর্তমানে বেশিরভাগ ভোজনরসিকদের মধ্যে একটি প্রতিযোগিতা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিভিন্ন দেশের বা অঞ্চলের নানা পদের খাবার বর্তমানে ইন্টারনেট কিংবা সোশ্যাল মিডিয়ার কারনে খুব দ্রুত এক্সপোজার পাবার ফলে ভোজনরসিকদের মধ্যে আগ্রহ তৈরি করছে। এটি তাদের এতই কৌতূহলী করে তোলে যা তাদের এক রকম গ্যাস্ট্রোনমিক্যাল জার্নি হয়ে দাড়িয়েছে।


বর্তমানে আমাদের দেশে ঘরের বাইরে খাবার খাওয়ার একটি আশ্চর্য পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। এখনকার মানুষেরা গতানুগতিক খাবার অভ্যাস এ আর আঁটকে নেই। তারা প্রতিনিয়তই নিত্যনতুন খাবার খেতে পছন্দ করে। বিশেষ করে এখন মাল্টিকুইজিন রেস্তোরাঁর সংখ্যাও বেশ বেড়ে চলেছে। একটি রেস্তোরাঁতেই এখন বিভিন্ন স্বাদের খাবারের আয়োজন করতে দেখা যায়। সেই রকম একটি মাল্টিকুইজিন রেস্তোরাঁ হলো ব্রীজ

ঢাকার নিকুঞ্জে অবস্থিত ব্রীজ এমন একটি রেস্তোরাঁ যেখানে ভিন্ন ভিন্ন কুইজিনের খাবার পাওয়া যায়। ব্রেকফাস্ট আইটেম, কাবাব, নানা রকম স্যুপ, বার্গার, পিজ্জা, স্টেক সহ আরও অনেক ধরণের খাবার রয়েছে এই রেস্তোরাঁতে। লুকরেটিভ ডেকোরেশনের কারনে নিকুঞ্জে এই রেস্তোরাঁটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অনেকে এর

ডেকোরেশন এর জন্যেও এখানে সময় কাটাতে ভালবাসেন। ছবি তোলার জন্য এদের আউটডোরে বিশেষ কিছু যায়গা রয়েছে যা বর্তমান ইয়াং স্টারদের বেশ পছন্দ।


খাবারের ব্যাপারে আসা যাক এইবার, খাবারের গুনগতমান অক্ষত রেখে ব্রীজ তার ভোক্তাদেরকে মানসম্পন্ন খাবার পৌঁছে দিচ্ছে। মাল্টিকুইজিন হওয়াতে ১৪ থেকে ১৫ টি সেগমেন্টের খাবার তাদের এখানে পাওয়া যায়। তাদের সকল খাবারের মধ্যে তাদের পিজ্জা বেশ জনপ্রিয় এবং স্বাদেও বেশ সুস্বাদু। পিজ্জার যথাযথ স্বাদ বজায় রেখে তারা তাদের পিজ্জা বানিয়ে থাকে। এছাড়াও তারা তাদের প্রতিটা খাবার খুবই যত্নের সাথে বানায়।


তাদের এখানে ভেরাইটিজ ধরনের কাবাব ও পাওয়া যায়। রেশমী কাবাব, বিহারী কাবাব, শিক কাবাব, চিকেন মালাই কাবাব, ফিশ মালাই কাবাব এর মধ্যে অন্যতম। এছাড়াও মিক্সড কাবাবের প্লেটার ও রয়েছে তাদের। কাবাবের জন্য আলাদা একটা স্পেস’ই রয়েছে এই রেস্তোরাঁতে যার ইন্টিরিওর টা বাহিরের দিকে অবস্থিত এবং এই প্লেসটির পাশেই ছবি তোলার একটি সুন্দর জায়গাও যায়গা রয়েছে।

বিভিন্ন ছোট বড় অনুষ্ঠানের জন্য এই যায়গাটি বেশ ভালো। বিশেষ করে জন্মদিন, বিয়ের ছোট অনুষ্ঠান, বিবাহ বার্ষিকীর বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজনও এই রেস্তোরাঁটি করে থাকে। ফ্যাট ম্যান ফিল্মের টীম মেম্বাররা ব্রীজের সাথে খুবই স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে কাজ করে যাচ্ছে এর শুরু থেকেই।

ফ্যাট ম্যান ফিল্ম বাংলাদেশের একটি সৃজনশীল প্রোডাকশন এজেন্সি। ফ্যাট ম্যান ফিল্ম কমার্শিয়াল ফটোগ্রাফি, ভিডিওগ্রাফি, ডিজিটাল মার্কেটিং এবং ব্র্যান্ডিং এর সকল সেবা দিয়ে থাকে।


ফ্যাট ম্যান ফিল্মের সাথে যোগাযোগ করুনঃ +৮৮০ ১৭১৬ ৭১৬ ১৬৪ । ফেসবুকইনস্টাগ্রামwww.fatmanfilm.com



176 views
bottom of page